শিবচরে পাঠাও রাইডের ২ ছিনতাইকৃত মটরসাইকেল উদ্ধার, ২ ছিনতাইকারী গ্রেপ্তার

মোঃ আবু জাফরঃ
ঢাকা থেকে পাঠাও রাইডের মোটরসাইকেলের যাত্রী বেশে গ্রামে এনে জিম্মি করে মুক্তিপন আদায় শেষে মোটরসাইকেল ছিনতাই চক্রের ২ সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃতদের কাছ থেকে ছিনতাইকৃত ২টি মোটরসাইকেল উদ্ধার করেছে পুলিশ। মাদারীপুর জেলার শিবচর উপজেলার উমেদপুরে ভয়াবহ এ চক্রের সন্ধান পায় পুলিশ।
পুলিশ ও আক্রান্তরা জানায়, গত ১৮ জুন মহসিন নামের এক যুবক ঢাকার লালবাগের কেল্লার এলাকা থেকে পাঠাও এ্যাপসের মাধ্যমে রাইডার মোঃ হাসান আহম্মেদকে (৩৮) নিয়ে কামরাঙ্গীরচর যায়। মহসিন ট্রীপের কথা বলে হাসানের মোবাইল নাম্বার রেখে দেয়। গত ২০ জুন মহসিন হাসানকে আবারো ফোন দেয়। আড়াই হাজার টাকায় মহসিন হাসানকে নিয়ে শিবচরে আসে। মহসিন শিবচরের উমেদপুরের আলীপুর নামক স্থানে পৌছে সহযোগী অপু মুন্সী , শাওন হোসেনসহ ৪/৫ জন মিলে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে রাইডার হাসানকে জিম্মি করে। হাসানকে গলায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে ব্যাপক মারধর করে পরিবারের কাছে মুক্তিপন দাবী করে। বিকাশে ১০ হাজার টাকা মুক্তিপন আদায় করে চক্রটি। পরে ১৬৫ সিসির নীল-কালো হরনেট মোটরসাইকেলটি (রেজিঃ নং-ঢাকা-মেট্রো-ল-৩৬-২০৫০) রেখে হাসানকে ছেড়ে দেয়া হয়। পরেরদিন হাসান শিবচর থানায় অভিযোগ করেন। এরপর গত ২৭ জুন একইভাবে মহসিন মোঃ আরিফ হোসেন (২৭) নামের আরেকজন পাঠাও রাইডারকে ঢাকার কদমতলী থেকে শিবচরের উমেদপুর নিয়ে আসে। সেখানে চক্রটি আরিফকে জিম্মি করে মারধর করে মুক্তিপন আদায় করে। এরপর তার কালো-লাল রংয়ের ১৫০ সিসির পালসার মোটরসাইকেলটি ( রেজিঃ নং-ঢাকা-মেট্রো-ল-২২-০২৬৭) রেখে ছেড়ে দেয়া হয়। এ বিষয়েও শিবচর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন হাসান। ভয়াবহ চক্রটির বিরুদ্ধে অভিযানে নামেন সহকারী পুলিশ সুপার গোলাম রব্বানীর নেতৃত্বে শিবচর থানা পুলিশের একাধিক টিম। প্রযুক্তির সহায়তায় শনিবার বিকেলে পুলিশ ছিনতাই চক্রের সদস্য অপু মুন্সী , আরিফ হোসেনকে ছিনতাইকৃত দুটি মটরসাইকেলসহ গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত অপু মুন্সী (২৪) শিবচরের উমেদপুর ইউনিয়নের আলেপুরের মৃত হেমায়েত মুন্সীর ছেলে , গ্রেফতারকৃত শাওন উকিল (২২) একই গ্রামের কালাম উকিলের ছেলে।
সিংকঃ শিবচর থানার পরিদর্শক(তদন্ত) মোঃ সেলিম হোসেন বলেন, সহকারী পুলিশ সুপার গোলাম রব্বানীর স্যারের নেতৃত্বে শিবচর থানা পুলিশ ২টি মটরসাইকেল ও ছিনতাইকারীকে গ্রেপ্তার করেছে।