গণিত পরীক্ষায় ক্যালকুলেটর নিয়ে কেন্দ্রে প্রবেশে বাধা দেয়ার ঘটনায় শিবচরে ২টি স্কুলে ব্যাপক ভাংচুর, আহত-১০#কেন্দ্র সচিব ও সহকারী সচিবকে অব্যাহতি, তদন্ত কমিটি গঠন

Shibchar 2 School Vangchur Shibchar 2 School Vangchur-2 Shibchar 2 School Vangchur-3 Shibchar 2 School Vangchur-Update
শিবচর বার্তা ডেক্সঃ
শিবচরে সাধারণ গণিত বিষয়ে ২টি ভ্য্যনু(স্কুলে) ক্যালকুলেটর নিয়ে পরীক্ষার্থীদের প্রবেশে  বাধা দেয়ার ঘটনায় বুধবার তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ের পরীক্ষা শেষে দুই ভ্যানুতে ব্যাপক বিক্ষোভ ও ভাংচুর করেছে পরীক্ষার্থীরা। এ ঘটনায় এক শিক্ষক আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি ও  ১০ শিক্ষার্থী আহত হয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এ ঘটনায় এসএসসি পরীক্ষার কেন্দ্র সচিব মোঃ রফিকুল ইসলাম ও সহকারী কেন্দ্র সচিব মোঃ হারুন-অর-রশিদকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোঃ আজহারুল ইসলাম।
জানা যায়, মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত এসএসসি পরীক্ষার গণিত বিষয়ে ক্যালকুলেটর ব্যবহার করতে না দেওয়ায় বুধবার তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ের পরীক্ষা  শেষ করে প্রথমে শিবচর নন্দ কুমার মডেল ইনষ্টিটিউশন ভেন্যুতে ব্যাপক ভাংচুর করে শিক্ষার্থীরা। এ খবর দ্রুত ছড়িয়ে পড়লে শেখ ফজিলাতুন্নেছা সরকারী পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ভেন্যুতেও  ভাংচুর করে বিক্ষুদ্ধ শিক্ষার্থীরা। এই সময় বিক্ষুদ্ধ শিক্ষার্থীরা প্রায় এক ঘন্টা ব্যাপী ভাংচুর চালায়। দুটি বিদ্যালয়ের ভবনের দরজা, জানালা, চেয়ার-টেবিল ও আসবাবপত্র ক্ষতিগ্রস্ত হয়। শিবচর নন্দকুমার ভেনুতে প্রায় ৩০টি কক্ষ এবং শেখ ফজিলাতুন্নেছা ভেনুর প্রায় ১০টি কক্ষের দরজা জানালা আসবাব পত্র ভাঙচুর করে। এসময় বিদ্যালয় বিভিন্ন কক্ষের সিসি ক্যামেরা ভেঙে ফেলে বিক্ষুব্ধরা শিক্ষার্থীরা। ভাংচুর ও তান্ডব চলাকালীন সাধারণ শিক্ষার্থীরা দিকবিদিক ছুটাছুটি শুরু করে। বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীদের এলোপাতাড়ি ভাংচুর ও তান্ডবে এক শিক্ষক শিক্ষার্থীসহ ১০ জন আহত হয়েছে। গত দিনের উত্তেজনা সত্বেও পুলিশি তৎপরতা তেমন চোখে পড়েনি। কিছুক্ষণ পর স্থানীয় প্রশাসন স্থানীয় রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের সহযোগিতায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। আহতদেরকে শিবচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। বুধবার উভয় ভ্যানুতে প্রায় ২ হাজার পরীক্ষার্থী পরীক্ষা দেয়।
এ ঘটনায় এসএসসি পরীক্ষার কেন্দ্র সচিব মোঃ রফিকুল ইসলাম ও সহকারী কেন্দ্র সচিব মোঃ হারুন-অর-রশিদকে অব্যাহতি প্রদান করা হয়েছে। ওই দুইজনের স্থলে পাচ্চর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শামসুল আলমকে কেন্দ্র সচিব ও পাচ্চর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শাহআলম সিরাজীকে সহকারী সচিব হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়। এ ঘটনায় ৩সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার বিশ্বজিৎ রায়কে প্রধান করে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার রফিকুল ইসলাম ও শিক্ষক প্রতিনিধি উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি শামসুল আলমকে তদন্ত কমিটির দায়িত্ব দেওয়া হয়। ৩ কার্যদিবসের মধ্যে রিপোর্ট প্রদানের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।  সিদ্ধান্ত হয়েছে  ২ স্কুলে ও পক্ষ থেকে মামলা দেয়ার।
উল্লেখ্য, এসএসসি পরীক্ষায় সাধারণ সায়েন্টিফিক ক্যালকুলেটর পরীক্ষায় ব্যবহারের নিয়ম থাকলেও মঙ্গলবার গণিত পরীক্ষায় শিবচর নন্দকুমার ভেনুর গেট থেকেই ক্যালকুলেটর নিয়ে প্রবেশ করতে বাধা দেওয়া হয়।অপর দিকে শেখ ফজিলাতুন্নেছা সরকারী পাইলট বালিকা বিদ্যালয় ভেনুতে বেশ কয়েকটি কক্ষ থেকে  শিক্ষার্থীদের ক্যালকুলেটর নিয়ে নেওয়া হয়। উভয় ঘটনায় মঙ্গলবার থেকে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মাঝে তীব্র উত্তেজনা বিরাজ করছিল।
শিবচর নন্দকুমার ইনস্টিটিউশনের প্রধান শিক্ষক ও অব্যাহতিপ্রাপ্ত সহকারী কেন্দ্র সচিব মোঃ হারুন-অর-রশিদ বলেন, এ হামলা পূর্ব পরিকল্পিত । পরীক্ষার্থীরা কেন্দ্রে ঢোকার আগেই বলছিল হামলা চালাবে। তা শুনে আমরা পুলিশকে বলি। ৩ দফায় ব্যাপক হামলা চালিয়েছে ওরা। আমার স্কুলের অনেক ক্ষতি হয়েছে।
শেখ ফজিলাতুন্নেছা পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও অব্যাহতিপ্রাপ্ত  কেন্দ্র সচিব মোঃ রফিকুল ইসলাম বলেন, গতকালকের ঘটনা আড়াল করতে আজ এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে। আমার স্কুলে মাত্র একটি কক্ষে শিক্ষকরা ক্যালকুলেটর নিয়েছিল।একটু পরেই তা দিয়েও দিয়েছিল। আর নন্দকুমার ভ্যানুতে সবার ক্যালকুলেটরই নিয়ে নেয়া হয়।
শিবচর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও এসএসসি পরীক্ষা কমিটির সভাপতি মোঃ আসাদুজ্জামান জানান, শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ ও ভাংচুরের ঘটনায় এসএসসি পরীক্ষার কেন্দ্র সচিব মোঃ রফিকুল ইসলাম ও সহকারী কেন্দ্র সচিব মোঃ হারুন-অর-রশিদকে অব্যাহতি প্রদান করা হয়েছে। এছাড়া ওই ঘটনায় ৩সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।
শিবচরে সাধারণ গণিত বিষয়ে ২টি ভ্য্যনু(স্কুলে) ক্যালকুলেটর নিয়ে পরীক্ষার্থীদের প্রবেশে বাধা দেয়ার ঘটনায় বুধবার তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ের পরীক্ষা শেষে দুই ভ্যানুতে ব্যাপক বিক্ষোভ ও ভাংচুর করেছে পরীক্ষার্থীরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>

Free WordPress Themes - Download High-quality Templates